বৃহস্পতিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০০৯

আমি মৈত্রী...

আমি? আমি প্রেম
আমি উদার, অসীম, মুক্ত ভালবাসা –
আমার হৃদয়ে এখনো রয়েছে,
মহামিলনের আশা।
আমার হাতে, মাথায়, চোখে
নব প্রভাতের গান
আজও। আমি বেঁচে আছি,
জীবন আমার মান, অভিমান
অহংকারে ঘেরা
আজও আমি সেরা।
আমার মধ্যে আজও রয়েছে
প্রভাতের প্রভারাশী
আমার মধ্যে রয়েছে হরি –
তাই আমি হরিদাসি।
হাঁসি? আজও আছে
আমার আঁচলে কোথাও
তারই মাঝে লুকিয়ে আছে
গোপন কোনো ব্যথা-ও।
যে ব্যথা – কাউকে যায় না বলা
শুধুই জলে ভাসিয়ে চিবুক,
শুধুই গন্ধে ভরিয়ে এ’বুক,
নিশ্চুপ পথ চলা।
আমি? আজ মুক্ত,
আজ নেই কোনো হাতের ইসারায়
নিজেকে উজার করার ক্ষিদে।
আজ সবই সুপ্ত, গভীর বাসনায়।
আমার প্রতি শ্বাসে আজ
কেবলই আমার বাঁচা
আমার ভেতরে, আমার বাহির
আমারই গড়া খাঁচা –
আর সেখানেই থাকি আমি –
দূর হতে দেখি একলা আকাশ
মেঘ নিয়ে গেছে উড়িয়ে বাতাস;
তারই বুকে দেখি তারাদের বাস –
যখন আঁধার আসে নামি।
আমি তবু রই শান্ত
সহস্রবার পথ চলে চলে
আজ হয়েছে পরিশ্রান্ত।
তবু কি গিয়েছি থেমে?
কাটিয়েছি কত ঘুমহীন রাত
জীবনে সয়েছি কত প্রতিঘাত
কত আঁধারে বাড়িয়েছি হাত
ধরেনিতো কেউ নেমে!
আমি বিশ্বাস, আমি সত্য
আমি চঞ্চল, আমি নিত্য
আমি নগের চূড়ায় বসিয়া দেখেছি
প্রেমের নগ্ন নৃত্য।
আমি পেয়েছি সবই, তাই
চাওয়ার ছিল না কিছুই।
আমি চাইনি কখনো –
চাইনি কারো দান, আমি
চাইনি কারো গান
হতে। যা পেয়েছি তাই নিয়ে আমি
সুখেই রয়েছি এখনো।
তবু আমার সভ্য জগতে
হঠাত্‌ এ’দিন আমারই কেউ
হাত বাড়িয়ে ডাকলো আমায়
বললো, “সাথে যাবে?”
বুঝিনি সেদিন, কে সে ছিল
প্রাণেতে আমার এলো কিনা এলো
নাকি দূর হতে ছলে শুধু গেল
সত্যি কি মোর হবে?
খেলে গেল সে
নিদারূণ খেলা, আমার
প্রাণেরে নিয়ে। বুঝলো না
মোরে একবার!
খেলার পুতুল, যেন আমি তার!
ছলে গেল, চলে গেল –
বলে গেল, “সাথে রব।”
জানি সে মিথ্যে;
তবু মনে ভাবি –
আমি তো বলিনি, সেই
বলে গেল সবই,
জানলো না মোর প্রাণ কি চায়
জানলো না –
ভালবাসা বড় দায়।
কাপুরুষতার সীমা পার করে
দূরে সরে গেল হারিয়ে;
দেখলো না ফিরে, রয়েছি দুয়ারে
আজও আমি হাত বাড়িয়ে!
আমি প্রেম, আমি মৈত্রী
সদাপ্রসন্ন, আমি ধরিত্রী।
আমাতে রয়েছে ত্যাগ –
আমি যে নারী, সহ্যের সীমা
আমি যে পারি সব!
আমাতে বেদনার লেশটুকু নেই
আমার যা আছে সবই আমি দিই।
যা ছিল আমার, নিয়ে গেছে সেইকরি নাতো কলরব।
তবু আমি ভুল
তোমার, সবার চোখে
পারিনি যে আমি
দাঁড়াতে, তারে রূখে!
হয়তো সেদিন
প্রেম এসেছিল বুকে –
ভেবেছিলাম, তারই সাথে
থাকবো সুখে।
তাই, ক্ষমা করো আজ মোরে
আপ্ন ভুলায়ে, আপ্ন ভেবেছি তারে
ভেবেছিনু সে আকাশ প্রমাণ
এত বড় বুক, ভরে আছে প্রাণ –
কিন্তু বুঝিনি সব মেঘ তরে
তার যে সমান টান।
ভাল কি বেসেছে সে, কভু?
নাকি আরেকটা ফুল হিসেবে
আমার গন্ধ কেবল শুঁকেছে?
হয়তো মনের ভুল আমার।
তবু আমি প্রেম
উদার, আমি মুক্ত ভালবাসা,
আমার মননে, প্রভাত স্বপনে
মহামিলনের আশা।
জানি আসবে না সে ফিরে –
তবু বাঁধি ঘর – আকাশে, বাতাসে
সাগরে, বালুচরে,
- একবার তার দেখা পা’ব বলে
- একবার তার ছোঁয়া পা’ব বলে
- একবার সির নামাবো তার চরণে –
- একবার তারে জড়াবো এ’ বুকে
- একবার মোরা হাসবো সুখে
- একবার, যদি একবার শুধু
- - ফিরে আসে মোর জীবনে।।

২৪/০৩/২০০৪
মালঞ্চনগর, আগরতলা।
{ অনেক বছর আগে আমার লেখা এই কবিতা। মৈত্রী, আমার স্ত্রী। তখন, প্রেমিকা। যেন মৈত্রী কিছু বলতে চাইছিল। এই কবিতা তারই বহিঃপ্রকাশ। }

1 মন্তব্য:

Lisa Breathes.....!!! ২ ফেব্রুয়ারী, ২০০৯ ৯:২২ PM  

Darun kobita...your wife is very lucky to get such an imaginative and poetic husband..............

........ kobita kodor ami kori...tomar kobita puro hridoyer moddhey dhukey jay.... kichu boltey chay...........amazing piece....keep posted...
.............once again... Maitrai might be a very sweet and cute gal who made that pressure in your heart that you wrote such an awsome poem.............GOOD WORK..!!!

বাংলা ভাষা

বাংলা শুনলেই আমার জ্বর আসতো। এখোনো একটা ভয় রয়েই গেছে। তবুও এই বাংলা ভাষাই আমার প্রিয়। কত কবিতা, কত গান, কত গল্প লিখেছি আমি বাংলায়। সেই পুরাতন দিন, যখন পাতার পর পাতা চিঠি লিখতাম আমার প্রিয়তমাকে, কবিতা লিখে পাঠাতাম বাংলায়। এবার আবার সুযোগ পেয়েছি বাংলায় লেখার। এ সুযোগ আমি ছাড়ব না।

আমার বাড়ি

আমার বাড়ি আগরতলায়, ত্রিপুরার রাজধানী। ভারতবর্ষের উত্তর পূর্ব প্রান্তের ছোট্ট রাজ্য, ত্রিপুরা। জাতি উপজাতি মিলে মিশে থাকি আমরা। আমার বাড়ি ওখানে। ছোট্ট আমাদের শহর, আগরতলা। খুব সুন্দর জায়গা। আমার সবচাইতে প্রিয় শহর। তোমরা এসো - দেখে যেয়ো আমার বাড়ি।

ব্লগ সম্বন্ধীয়

এটা আমার প্রথম বাংলা ব্লগ। ব্লগ তো আমি অনেক লিখি, তবে বাংলায় এই প্রথম প্রচেস্টা। খুব ইচ্ছে ছিল বাংলায় লেখার। অনেক সফট্যার ঘাটা ঘাটি করে পেলাম এই উৎকৃসষ্ট অভ্র কিবোর্ড। এবার আমিও লিখব – বাংলা ভাষায়। মন খুলে, প্রাণ খুলে লিখব। আশা করি তোমরা পড়বে এবং উৎসাহ দেবে। ধন্যবাদ।

আমার কথা

আমার নাম তন্ময়।
আমি ভালবাসি লিখতে – কবিতা, গান, গল্প।
আর ভালবাসি নতুন নতুন মানুষের সাথে বন্ধুত্য করতে।
জীবনকে ভালবাসি, এবং হাসিমুখে অভিনন্দন জানাই জীবনের প্রতিটি মোড়কে।
সব কাজ ভিন্ন ভাবে করতে চাই – কিন্তু বিভিন্ন কাজ করেই দিন যাপন করি।
ব্লগ লেখা শুরু ক’বছর আগে, তবে বাংলা ব্লগ এই প্রথম। আমার ভালো লাগে ব্লগ লিখতে। এখানে আমি একা হলেও, আমি প্রাণ খুলে লিখতে পারি। মনের কথা গোপন রাখার কোনো দরকার হয় না। নিজেকে উজাড় করে লিখতে পারি। এটা ছাড়াও আমার আর কয়েকটা ব্লগ আছে, যাদের লিঙ্ক দেওয়া আছে এখানে।
আমার লেখা পড়ে, যদি তোমার ভালো লাগে, তো খুশি হবো। মন্তব্য করতে ভুলো না যেন!

এই যে। কই চল্লেন? এদিকে আসুন।

আমার দুটো কথাঃ

ভালবাসলে যখন তুমি আমাকে, তবে কেন বলো দূরে সরে থাক
আজকের এই জোছনা ভরা রাত, আর জীবনে ফিরে আসবে নাকো।

  © Blogger template 'Personal Blog' by Ourblogtemplates.com 2008

একদম ওপরে চলুন।